শুভ্রাশ্রী মাইতি-র কবিতা

0
203
subhrashree maiti

শুভ্রাশ্রী মাইতি (Subhrashree Maiti)

শিক্ষিকা। থাকেন পূর্ব মেদিনীপুরে। কাব্যগ্রন্থ– মনজানালার আকাশ, সুবর্ণসুতোর সম্পর্ক, নিমফুলের নূপুর, মগ্ন জলের মুহূর্তেরা, হারিয়ে যাওয়া নাকছাবিটি।

সৃজন

মা রুটি বেলে
আশ্চর্য কায়দায়
বেলন ঘুরিয়ে ঘুরিয়ে

এক একটা নিখুঁত, নিটোল
পূর্ণিমা চাঁদের বৃত্ত; গুঁড়ো গুঁড়ো
জ্যোৎস্না আটার স্বপ্ন, রুটির গায়ে

তেমন রুটি বেলতে পারিনি
আমি কোনদিনও; মায়ের রুটি বেলার
দিকে তাকিয়ে থাকি আর ভাবি

পৃথিবী গড়ে ওঠে এভাবে এখনও !

 

সহাবস্থান

যাপনের ভেতর
একটা ঘুণপোকা
ঢুকে পড়ে মাঝে মাঝে

কুরে কুরে খায়
স্নেহ, ভালোবাসা,
মায়া, সম্পর্ক ধীরে ধীরে
আমরা তার শব্দ শুনতে পাই
রাতবিরেতে…কুর…কুর…কুর

আমাদের অলড্রিন কিংবা
আরোগ্য নেই মাপমতো
তাই পাশাপাশি থাকি; ভবিতব্য
মেনে নিয়ে পাশাপাশিই থাকি

আমাদের রক্তক্ষরণও
কবিতা হয়ে ওঠে
মাঝরাতে নির্ঘুম

 

উত্তরণ

বুকের ভেতর লুকানো থাকে
এক আশ্চর্য হারমোনিয়াম

আর কেউ জানে না, কবি জানেন,
বেদন বেশি হলে তার রিড কেঁপে ওঠে
সাদাকালো পাখির ডানার মতো তিরতির
যেন বিলম্বিত থেকে দ্রুত লয় ছুঁয়ে
পৌঁছে যাবে এখনি ঝালার শেষ প্রান্তে

শমীর চলে যাওয়া রিডটির ওপর
হাত রাখেন কবি আলতো করে
যে সুর বেজে ওঠে তীব্র নিষাদের
তাতে মায়া হয়ে জেগে ওঠে একটা
আস্ত পৃথিবী ঘাসফুলমাটির দর্শন নিয়ে

কবি দ্যাখেন, জ্যোৎস্না ঝরে পড়ছে
চরাচরে চন্দনফুল হয়ে কেমন
জন্ম, মৃত্যু, আয়ু নিয়ে ছুটে যাচ্ছে
মহাকাল রেলগাড়ি আবহমান সত্যের দিকে
এক শমী অনন্ত, অফুরন্ত শমী হয়ে
ছড়িয়ে ছিটিয়ে পড়ছে চারপাশে

সাদা পাতা উল্টে কবি লিখলেন
অন্তরতর বোধি উদাসীন ধৈবতে…