পোড়া দিন দুপুরে: নীলাঞ্জন মুখোপাধ্যায়

0
28

না – ই বা থাকলো শরীর,আমার ভাবনাছবি ইতস্তত                          রইলো পড়ে ঝর্ণা,নদী,গ্রামের স্নিগ্ধ দীঘির মতন
ঢেউ তো ছিলোই লোকায়ত,অদৃশ্য,ভূমধ্যসাগর                                    ভ্রু – সন্ধিতে ভাঁজ দেখিনি,বললো,আমার সঙ্গে থাকো
ছোট্টবেলার সেই সাঁকোটি,দুষ্টু সে বোন,ন্যাঙটোপুটো                       সাজলো আমার শিক্ষয়িত্রী,জল ছিটিয়ে মন্ত্রপূতঃ
কাব্যগ্রন্থ ছিনিয়ে,ছিঁড়ে,সাজিয়ে আমায় রাজপোশাকে                       শ্মশান – ঘেরা যূথীর বনে রাজ্যশ্রীই ভাবছি যাকে
হঠাৎ হাওয়ায় ভুলিয়ে দিল হরিশচন্দ্র হওয়ার নেশা                                দিনদুপুরে রাজার পুরে অট্টহাসির হিংস্র হ্রেষা
রাংতা – জ্বলা সিংহাসনে রাজস্ব – চৌষট্টিকলা                                   ভাই – দ্বিতীয়ায় অসংলগ্ন আবেশবিভোর সে দুঃশলা
ভ্রু – মধ্য চোখ দেখছে ত্রস্ত দিগঙ্গনার খুনখারাবি                            বলছে, শরীর না – ই রইলো, আমার সঙ্গে ঘুরতে যাবি?