Home বিদেশি কবিতা

বিদেশি কবিতা

পুরনো পাড়া অনুবাদ: শ্যামশ্রী রায় কর্মকার চা গাছের আশ্চর্য অরণ্য ভেদ করে কাঁটাগুল্ম ও ঝরনা পার হয়ে শাকপাতার তিক্ত স্বাদ অতিক্রম করে এই বিবর্ণ রাস্তা দিয়ে কেউ আসে না। শীতল চাঁদের আলোয় ওই মাতাল বেড়ার খুঁটি এবং মসে সাদা হয়ে থাকা দরজার দিকে তাকায় না কেউ এই পুরনো পাড়াটি আকাশ ও পৃথিবীকে যখন তার শেষ প্রণাম জানায় তখন বাতাস ছাড়া আর কেউ তাকে...
‘(১৯৩৭-৩৮এ) য়েজ়ভ় কর্তৃক পরিচালিত রাষ্ট্রীয় সন্ত্রাসের ভয়াবহ বছরগুলিতে, লেনিনগ্রাদ-এর জেলখানার বাইরের দীর্ঘ লাইনে অপেক্ষা ক’রে-ক’রে, আমি, সব মিলিয়ে সতেরো মাস কাটিয়েছিলাম। একদিন, কেউ-একজন আমায় “চিনে” ফেলেন। আমার কাছেই লাইনে দাঁড়িয়েছিলেন এক মহিলা, প্রবল শীতে যাঁর ঠোঁট-দুটো নীল হয়ে গিয়েছিল। নিশ্চিত জানি, তিনি আমার কথা কখনও শোনেন নি, কিন্তু, যে...
গ্রেগরি করসো | জন্ম ১৯৩০ বিট জেনারেশনের কবি-লেখকদের মধ্যে অন্যতম গ্রেগরি করসোর জন্ম ২৬ মার্চ ১৯৩০ সালে, নিউ ইয়র্কে। জন্মের সময়ে তাঁর বাবা-মা দুজনেই ছিলেন টিন-এজার। করসোর এক বছর বয়েসেই বাবা ও মায়ের মধ্যে বিচ্ছেদ হয়ে যায়। তাই তাঁর ছোটবেলা কেটেছে এক অনাথ আশ্রম থেকে আরেক অনাথ আশ্রমে। রেডিও চুরি...
পাবলো নেরুদাপাবলো নেরুদার জন্ম ১৯০৪ সালে চিলির শহর পারেলে। ১৯৭১ সালে নোবেলজয়ী এই কবি প্যাশনেট্‌ ভালবাসার কবিতার অবিসংবাদিত সম্রাট। নেরুদার জীবন কেটেছে এক উত্তাল রাজনৈতিক সময়ের মধ্যে। সরকারি গ্রেফতারি পরোয়ানা এড়াতে স্বেচ্ছা নির্বাসন নেন আর্জেন্টিনাতে। পারিবারিক জীবন ও তেমন সুখের ছিল না। ব্যক্তিগত যন্ত্রণার উপশমের রাস্তা খুঁজেছে তাঁর কলম,...
অ্যালেন গিন্সবার্গমার্কিন কবি অ্যালেন গিন্সবার্গ (১৯২৬-১৯৯৭) পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশের পরম বন্ধু। দুই বাংলার অসংখ্য মানুষের সঙ্গে তাঁর নিবিড় বন্ধুত্ব ছিল। সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়ের বহু লেখায় গিন্সবার্গের প্রসঙ্গ আছে। ১৯৭১ সালে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের সময় সুনীলের সঙ্গে শরণার্থী শিবিরে ঘুরে বেরিয়েছেন গিন্সবার্গ। এই নিয়ে কবিতা রয়েছে তাঁর: September on Jessore Road. কবিতাটি...
ব্রাইটেন ব্রাইটেনবাখ | জন্ম ১৯৩৯ কেপটাউন থেকে প্রায় ১৮০ কিলোমিটার দূরে দক্ষিণ আফ্রিকার বোনিভাল গ্রামে জন্মেছেন। দক্ষিণ আফ্রিকার বর্ণবাদ বিরোধী আন্দোলনের সময় কারাদন্ডে দণ্ডিত হন। এই অঞ্চলের আফ্রিকানস-ভাষী দক্ষিণ আফ্রিকানরা তাকে অনানুষ্ঠানিকভাবে জাতীয় কবি হিসাবে ঘোষণা করেছেন। তিনি ফরাসি নাগরিকত্বেরও অধিকারী। বর্ণবাদী নীতির বিরুদ্ধে তার বিরোধিতা ও কাজ তাকে ষাটের...
অ্যান কারসন কানাডিয়ান। প্রিন্সটন বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক। 'ইরোস দ্য বিটারসুইট'-এর লেখক (প্রিন্সটন বিশ্ববিদ্যালয় প্রেস থেকে প্রকাশিত), পাশাপাশি কবিতা লিখছেন। এখন নিউ ইয়র্ক সিটির একজন রকফেলার স্কলার। ভাষান্তর | পিনাকী গায়েন বর্ণ বিভাজন বিষয়ে কিছু কথা নরম সূর্যধোয়া রঙে প্লাবিত ইউরোপবাসীরা, দেখো, সুরাতের ছবিতে মন্ত্র মুগ্ধ মানুষগুলোকে দেখেছো? ভদ্র সমাজ বসে আরাম করছে, চিন্তায় হারিয়ে গিয়ে ইউরপিয়ানরা...
চার্লস সিমিকসমকালীন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের অন্যতম কবি চার্লস সিমিকের জন্ম ১৯৩৮ সালে যুগোস্লাভিয়ার বেলগ্রেড শহরে। ষোল বছর বয়সে তিনি তাঁর পরিবারের সঙ্গে আমেরিকায় চলে এসেছিলেন। ১৯৬৬ সালে প্রকাশিত হয় তাঁর প্রথম কাব্যগ্রন্থ,‘হোয়াট দা গ্রাস সেইস’।‘নাইট পিকনিক’, ‘হোটেল ইনসোম্যানিয়া’, ‘আনএন্ডিং ব্লুজ’ তাঁর বিখ্যত কাব্যগ্রন্থ। ১৯৯০ সালে ‘ দা ওয়ার্ল্ড ডাজ নট...
গীতা ত্রিপাঠী | জন্ম ১৯৭২নেপালি কবি, গীতিকার, প্রাবন্ধিক ও সমালোচক। ত্রিভুবন বিশ্ববিদ্যালয়ের নেপালী বিভাগের অধ্যাপিক। বিভিন্ন সংবাদপত্রে পরিবেশ, নারী অধিকার এবং সামাজিক অবিচার নিয়েও নিয়মিত লেখালিখি করেন। নেপাল সরকার তাঁকে Padmakanya Gold medel- 2000 সম্মান দিয়েছে। ২০০৮ সালে Best Lyricists Award পেয়েছেন। কাঠমান্ডুতে বসবাস করেন। তাঁর উল্লেখযোগ্য কাব্যগ্রন্থগুলি হল...
ফরুগে ফারুখযাদ নারীদের মধ্যে ইরানের সবথেকে প্রভাবশালী কবি হিসেবে আখ্যা দেওয়া হয় ফরুগে ফারুখযাদকে (فروغ فرخزاد )। তিনি একাধারে কবি এবং চলচ্চিত্র নির্মাতা ছিলেন। সামাজিক অনেক প্রথার বিপরীতে কথা বলার কারণে তিনি তার সময়ে বিতর্কিত হয়েছিলেন। ইসলামী বিপ্লবের এক দশকেরও বেশি সময় ধরে ফারুখযাদের কবিতা নিষিদ্ধ ছিল। ১৯৯৯ সালে আব্বাস কেয়রোস্তামি...
রিকার্ডো মন্টিয়েল১৯৮২ সালে ভেনেজুয়েলায় জন্ম। প্রকাশিত কাব্যগ্রন্থের সংখ্যা তিন, প্রথমটি ২০১৫ সালে, দ্বিতীয়টি ২০১৮ সালে এবং তৃতীয়টি ২০২০ সালে প্রকাশিত হয়েছে। সমগ্র লাতিন আমেরিকা জুড়ে তাঁর লেখা এযাবৎ বিভিন্ন মাধ্যমে প্রকাশিত। ২০০৭ সাল থেকে বুয়েন্স আয়ার্সের বাসিন্দা। তারুণ্যের দীপ্ত রূপ ও নতুনের উদাত্ত আহ্বান তাঁর কবিতায় সবিশেষ উদ্ভাসিত। লাতিন...
টোমাস ট্রান্সট্রোমার | জন্ম ১৯৩১সুইডিশ ভাষার কবি। জন্ম সুইডেনের স্টকহমে। মনোবিজ্ঞানী ছিলেন। ১৯৯১ সালে মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণের পর পঙ্গু হয়ে যান। ২০১১ সালে সাহিত্যে নোবেল অর্জন। তাঁর কবিতা প্রভাব ফেলেছে সরা বিশ্বে। অনুবাদ হয়েছে একাধিক ভাষায়। পিয়ানো বাজাতে পছন্দ করতেন। তাঁর কবিতায় ছড়িয়ে আছে সঙ্গীতের আবহ। কয়েকটি বইয়ের নাম: সতেরোটি...
নেলি জাখ্‌স্ | জন্ম ১৮৯১‌জন্মেছিলেন বার্লিনে এক অভিজাত ইহুদী পরিবারে। কিশোরীবেলা থেকেই লেখালেখি। মূলত রোমান্টিক পদ্য লিখতেন এবং পত্রপত্রিকায় ছাপা হত। ১৯৪০ সালে নাৎসি আগ্রাসনের কারণে জার্মানি ছাড়তে বাধ্য হন, আশ্রয় নেন সুইডেনে। এই সময়ে তাঁর লেখা কবিতায়, চিত্রনাট্যে প্রতিফলিত হয়েছে অত্যাচারিত ইহুদীদের মর্মবেদনা। জার্মান ভাষায় লেখালেখি ছাড়াও সুইডিশ...
চার্লস বুকোওস্কি | জন্ম ১৯২০ জন্ম জার্মানিতে। কৈশোরেই আমেরিকার লস অ্যাঞ্জেলসে চলে আসে তাঁর পরিবার। এখানেই বেড়ে ওঠা। ছোটবেলা ছিল অন্ধকারময়। নিজের বাবার হাতে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতনের শিকার হতে হয় তাঁকে। সে বিষয় বহুবার ফিরে ফিরে এসেছে তাঁর লেখায়। প্রথম লেখায় আসা ছোটগল্প নিয়ে। পরবর্তীতে গল্পের পাশাপাশি লিখেছেন আত্মজৈবনিক...
ভারভারা রাও | জন্ম ১৯৪০ সালের ৩ নভেম্বর ভারভারা রাও একজন সমাজকর্মী, প্রখ্যাত কবি, সাংবাদিক, সাহিত্য সমালোচক এবং সুবক্তা। ১৯৪০ সালের ৩ নভেম্বর তেলেঙ্গানায় তাঁর জন্ম। তাঁকে তেলেগু সাহিত্যের অন্যতম শ্রেষ্ঠ সমালোচক বলে মনে করা হয়। বিগত প্রায় ষাট বছর ধরে তিনি কবিতা লিখে চলেছেন। এখানে অনুদিত ‘মেধা’ কবিতাটি তাঁর অন্যতম...
স্যুলি প্র্যুদম১৯০১ সালে সাহিত্যে প্রথম নোবেল পান। যিনি ১৮৩৯ খ্রিস্টাব্দে ফ্রান্সের প্যারিসে জন্মগ্রহণ করেন। ১৮৭০ সালে চিকিৎসকের ভুল চিকিৎসার কারণে স্যুলি প্র্যুদম চিরদিনের জন্য পঙ্গু হয়ে যান। ১৮৮৮ সালে তাঁর সর্বশ্রেষ্ঠ সৃষ্টি ল্য বোনর (Le Bonheur, "সুখ") প্রকাশিত হয়। এটি অমর মহাকাব্যের মর্যাদা পেয়েছে। নোবেল পুরস্কার থেকে প্রাপ্ত সব...
ক্যারোল অ্যান ডাফি ড্যামি ক্যারোল অ্যান ডাফি একজন ব্রিটিশ কবি ও নাট্যকার। তিনি ম্যানচেস্টার মেট্রোপলিটন বিশ্ববিদ্যালয়ে সমকালীন কবিতার একজন অধ্যাপক। ২০০৯ সালের মে মাসে তিনি ব্রিটেনের রাজকবি (পোয়েট লরিয়েট) নিযুক্ত হন এবং ২০১৯ সাল পর্যন্ত দায়িত্ব পালন করেন। তিনি প্রথম নারী হিসেবে এই পদ অলস্কৃত করার কৃতিত্ব অর্জন করেন। এছাড়াও...
নশি গিলানি | জন্ম ১৯৬৪ বাহাওয়ালপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশুনা। তারপর আমেরিকার সান ফ্রান্সিসকো হয়ে অস্ট্রেলিয়ার সিডনি। পাকিস্তানের লেখকদের সৃজনশীলতার উপর যে সামাজিক ও রাষ্ট্রীয় 'নীতি-নিয়ম'-এর চাপ, তার বিরুদ্ধে সরব হন। গড়ে তোলেন আন্দোলন। তাঁর কবিতা কার্যত নারী-সত্তার উদযাপন। যেহেতু প্রবাসী, তাই 'ডায়াস্পোরা'র চারিত্র্য-লক্ষণ ফুটে থাকে তাঁর সাহিত্যে। অস্ট্রেলিয়ার উর্দু অ্যাকাডেমির সহ-প্রতিষ্ঠাতা।...
লুইস গ্লিক | জন্ম ১৯৪৩ সদ্য নোবেল পেয়েছেন আমেরিকান কবি লুইস গ্লিক। তাঁর নামের উচ্চারণ নিয়ে নানা তর্জা চলছে ভারতে। জন্ম ১৯৪৩ সালে, নিউ ইয়র্কে। তাঁর কবিতায় গ্রিকপুরাণের অনুষঙ্গ পাওয়া যায়। এর আগে লুইসের কবিতা বাংলায় অনুবাদ হলেও নোবেল প্রাপ্তির পর দুই বাংলার বহু কবিতা অনূদিত হচ্ছে। তর্জমা | মাসুদুজ্জামান শ্বেতস্থান আমার বোন,...
লুইজ গ্লিক | জন্ম ১৯৪৩ সদ্য নোবেল পেয়েছেন আমেরিকান কবি লুইস গ্লিক। তাঁর নামের উচ্চারণ নিয়ে নানা তর্জা চলছে ভারতে। জন্ম ১৯৪৩ সালে, নিউ ইয়র্কে। তাঁর কবিতায় গ্রিকপুরাণের অনুষঙ্গ পাওয়া যায়। এর আগে লুইসের কবিতা বাংলায় অনুবাদ হলেও নোবেল প্রাপ্তির পর দুই বাংলার বহু কবিতা অনূদিত হচ্ছে। ভাষান্তর | শ্যামশ্রী রায়...